বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক আবু সাঈদ খান খোকন এর ইন্তেকালে বিএনপি ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান-এর শোকবার্তা

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক আবু সাঈদ খান খোকন গত রাতে ইউনাইটেড হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাইহে রাজিউন)। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর। আবু সাঈদ খান খোকনের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন বিএনপি ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

শোকবার্তায় বিএনপি ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বলেন, “মরহুম আবু সাঈদ খান খোকনের মৃত্যুতে আমি গভীরভাবে শোকাহত ও ব্যথিত হয়েছি। সাবেক রাষ্ট্রপতি শহীদ জিয়াউর রহমান-এর নীতি-আদর্শ এবং বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদী দর্শনে বিশ্বাসী মরহুম আবু সাঈদ খান খোকন জাতীয়তাবাদী যুবদলে যোগদান করে ক্রমান্বয়ে জাতীয় রাজনীতির অঙ্গনে প্রবেশ করেন। মুলদল বিএনপিকে সুসংগঠিত ও শক্তিশালী করতে তিনি জীবনের শেষদিন পর্যন্তু অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন। তার মতো একজন আদর্শবান রাজনৈতিক নেতার মৃত্যুতে দলে যে শূন্যতার সৃষ্টি হলো, তা সহজে পূরণ হবার নয়। দলের প্রতিটি ক্রান্তিকালে একজন নিষ্ঠাবান ও সাহসী নেতা হিসেবে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে সকল আনেন্দালন সংগ্রামে উদ্যোগী ভূমিকা পালন করেছেন। তার রেখে যাওয়া কর্ম ও বিশ্বাস দলের প্রতিটি নেতাকর্মীকে অনুপ্রেরণার উৎসাহ যোগাবে। মরহুমের এলাকাবাসী, বিএনপি‘র নেতাকর্মী, পরিবারবর্গ ও আত্মীয়-স্বজনদের মতো আমিও তাঁর মৃত্যুতে গভীরভাবে শোকাহত ও ব্যথিত হয়েছি। দোয়া করি-মহান রাব্বুল আলামীন যেন মরহুম আবু সাঈদ খান খোকনকে বেহেস্তনসীব এবং শোকার্ত পরিবারের সদস্যদেরকে ধৈর্ষ্য ধারণের ক্ষমতা দান করেন।”
বিএনপি ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান শোকবার্তায় মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যবর্গ, আত্মীয়স্বজন, গুণগ্রাহী ও শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর-এর শোকবার্তা

অপর এক শোকবার্তায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর দলের জাতীয় নির্বাহী কমিটির গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক আবু সাঈদ খান খোকন-এর ইন্তেকালে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। শোকবার্তায় তিনি বলেন, বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদী দল একজন আদর্শনিষ্ঠ, উদ্যোমী ও যোগ্য নেতাকে হারালো, যার স্থান অপূর্ণ থেকে যাবে। সাবেক রাষ্ট্রপতি শহীদ জিয়াউর রহমান বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদী দর্শণ ও বহুদলীয় গণতান্ত্রের চেতনায় উদ্বুদ্ধ ছিলেন মরহুম আবু সাঈদ খান খোকন। তাই বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে হারানো গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের প্রতিটি সংগ্রামে দৃঢ়চেতা সৈনিকের ন্যায় মরহুম খোকন অংশ গ্রহন করেছেন। শত প্রলোভনের মুখেও মরহুম আবু সাঈদ খোকন নীতি ও আদর্শ থেকে বিচ্যুত হননি। রাজনীতি ছাড়ার সমাজ সেবায়ও নানা কাজের সাথে যুক্ত মরহুম আবু সাঈদ খান খোকনের অবদান এলাকাবাসী ও বিএনপি‘র নেতাকর্মী চিরদিন শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করবে।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর শোকবার্তায় মরহুম আবু সাঈদ খান খোকন এর রুহের মাগফিরাত কামনা করে শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যবর্গ, আত্মীয়স্বজন এবং শুভাকা—খীদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।
বার্তা প্রেরক


(এ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী)
সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব 
বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি।

Torna su